৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

  • ৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo: ২০২১ সালের ৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা (১ম সপ্তাহ) প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (dshe.gov.bd)।

অষ্টম শ্রেণির এসাইনমেন্ট ২০২১ প্রকাশিত হয়েছে ১৬ মার্চ। মাধ্যমিক স্কুলে অধ্যয়নরত ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রথম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ সম্পন্ন করে ২৫ মার্চ ২০২১ তারিখের মধ্যে নিজ নিজ স্কুলের সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের কাছে জমা দিতে হবে।

আমাদের ওয়েবসাইটে ৬ষ্ঠ থেকে নবম শ্রেনির সকল এসাইনমেন্ট ও তার উত্তর দেওয়া হয়েছে। এই পোস্টে ২০২১ সালের ৮ম শ্রেনির ১ম সপ্তাহের হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এ্যাসাইনমেন্টের উত্তর দেওয়া হয়েছে।

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo
৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo 3

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

“সকল সাধকেরই মূল উদ্দেশ্য পরম পুরুষকে পাওয়া।” উক্তিটির যৌক্তিকতা নিরুপণ করাে।

৮ম শ্রেনির ১ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর ২০২১ এখান থেকে শুরু

উত্তর :

ঈশ্বর সর্বশক্তিমান। তিনি এক ও অদ্বিতীয়।তার উপরে আর কেউ নেই। তিনিই পরম পুরুষ। ঈশ্বরের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য যখন কেউ গভীর ধ্যানে মগ্ন হয় তখন তাকে সাধনা বলা হয়। সাধনার মাধ্যমে ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভ করা যায়। ঈশ্বর যখন সাধনায় সন্তুষ্ট হােন তখন তিনি তার ভক্তের মনােবাঞ্চা পুরণ করেন। ঈশ্বরই হচ্ছেন পরম পিতা,তিনিই পরম পুরুষ।ঈশ্বরের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য সাধনা করা হয় অর্থাৎ সাধনার উদ্দেশ্যই হচ্ছে পরম পুরুষকে পাওয়া।

আমার জানা তিনজন সাধক হচ্ছেন অমল ঠাকুর,স্বামী আচার্য চয়ন,সন্ধ্যা দেবী। অমল ঠাকুর একজন শিব ভক্ত। তিনি ঈশ্বরের আরাধনা হিসেবে ধ্যানকেই বেছে নিয়েছেন। একনিষ্ঠ মনে নিরিবিলি বসে ঈশ্বরের আরাধনা করাকেই ধ্যান বলেন ।

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

অমল ঠাকুরের কাছে ঈশ্বর নিরাকার এবং ধ্যানই হচ্ছে ঈশ্বর লাভের পথ তাই তিনি একজন জ্ঞানী ভক্ত।
স্বামী আচার্য রােজ সকালে উনার বাড়ির মন্দিরে ঈশ্বরের পুজা অর্চনা করেন এবং রােজ সম্পূর্ণ গীতা পাঠ করেন, নৈবেদ্য চড়ান তার কাছে ঈশ্বর সাকার। তাই ঈশ্বরের প্রতিমা বা প্রতীক সামনে রেখেই তিনি করেন তার সাধনা। তার কাছে এটাই পরম পুরুষকে পাওয়ার পথ।

অন্যদিকে সন্ধ্যা দেবী ধ্যানও করেন আবার পুজা অর্চনাও করেন। তার কাছে ঈশ্বরকে মন দিয়ে ডাকাই হচ্ছে তাকে পাওয়ার একমাত্র পথ।তিনি ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করার জন্য সবকিছুই করতে চান। তাই তার কাছে ঈশ্বর
সাকার-নিরাকার দুটোই। তাদের সাধনার পথ পৃথক ।একজনের কাছে ঈশ্বর সাকার তাে আরেকজনের কাছে ঈশ্বর নিরাকার আবার অন্যজনের কাছে ঈশ্বর সাকার ও নিরাকার উভয়ই। তবে তারা সবাই কিন্তু একই ঈশ্বরের সাধনায় ব্রত। এক ঈশ্বরকে পাওয়ার আকাঙখা থেকেই তাদের সাধনার পথে পা বাড়ানাে।

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

ঈশ্বর এক ও অদ্বিতীয় তাই একাধিক ঈশ্বরের আরাধনা কখনােই সম্ভব নয়। যে যেভাবেই সাধনা করুক না কেন তাদের সবারই মূল উদ্দেশ্য পরম পুরুষকে পাওয়া। সেক্ষেত্রে আমার জানা তিনজন সাধকের সাধনার পথ পৃথক হলেও তাদের উদ্দেশ্য ওই এক পরম পুরুষেই গিয়ে মিলেছে। তাই ভক্ত যতজনই হােক আর যে যেভাবেই ভজনা করুক প্রত্যেকের জন্য ঈশ্বর হলেন একজন। এক ঈশ্বরের শিষ্য সবাই, সবারই উদ্দেশ্য ঈশ্বর তথা পরম পুরুষের সান্নিধ্য লাভ করা, তাকে পাওয়া। তাদের মত ও পথ আমায় ভীষণভাবে প্রভাবিত করেছে। তাদের সাধনা দেখে আমি এটা বুঝতে পেরেছি যে এই জীবনে আমাদের প্রধান কাজই হচ্ছে ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের প্রচেষ্টা। পরম পুরুষকে না পেলে কারােরই মােক্ষলাভ ঘটবে না।


আমি এটা জানতে পেরেছি যে,ঈশ্বরকে লাভের জন্য তাকে মন দিয়ে ডাকাই হচ্ছে সহজ পথ। ঈশ্বরকে যে যেভাবেই ভজনা করুক যদি সে মন দিয়ে তাকে ডাকতে পারে তাহলে ঈশ্বরও তার ডাকে সাড়া দিয়ে থাকেন। ভক্তের ডাকে ভগবান সাড়া না দিয়ে থাকতে পারেন না। এখন আমিও রােজ গীতাপাঠ করি  ।প্রতিদিন স্নান করে ধ্যান করি।পুজা অর্চনাও করি।আমার উদ্দেশ্য তাদের মতাে এতটা গভীর না হলেও আমিও ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করতে চাই। কারন ভগবান ছাড়া ভক্তের কোনাে মূল্য
নেই। তাই আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত ঈশ্বরের নামে নজের জীবনকে সমাপিত করা। আমাদের জীবন দা করেছেন ঈশ্বর,তাই জীবনে চলার পথে তাকেই সবার উপরে রেখে চলতে হবে।ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করতে পারলেই জীবন হবে মধুময়।

৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট হিন্দু ধর্ম উত্তর। Class 8 assignment answer Hindu dharmo

শিক্ষার্থীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নির্দেশনা

এ্যাসাইনমেন্ট এর রূপরেখার সর্বজন স্বীকৃত তেমন কোনো কাঠামো নেই। প্রতিটা প্রতিষ্ঠানেরই তাদের নিজস্ব কাঠামো বা রুপরেখা থাকতে পারে। যদি ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক অ্যাসাইনমেন্টের জন্য নির্দিষ্ট কোনো রূপরেখা দেওয়া হয় তা অবশ্যই মেনে চলতে হবে। তবে এ্যাসাইনমেন্ট সাধারণভাবে যে বিষয়গুলো আপনার লিখতে হবে তা হলোঃ-

ভূমিকাঃ এখানে সমস্যার একটি সু-স্পষ্ট বর্ণনা থাকবে। Assignment-এ ব্যবহৃত শব্দ ও পদগুলোর ডেফিনেশন বা সংজ্ঞা থাকবে এবং সমস্যা বা অ্যাসাইনমেন্ট এর সীমাবদ্ধতা এখানে লিখতে হবে। তাৎপর্য ও পটভূমি এর মধ্যেই থাকবে। এখানে আরোও কিছু থাকতে পারে। যেমনঃ আনুষঙ্গিক বই পত্রের পর্যালোচনা থাকতে পারে আবার সমস্যা বা বিষয়টির পরিধি বর্ণিত হতে পারে। মূল ব্যাপার হচ্ছে, ভূমিকায় পুরো অ্যাসাইনমেন্ট সম্পর্কিত মোটামুটি একটা ধারনা থাকবে।

মূল অংশঃ এই অংশে যুক্তিতর্কের মাধ্যমে বিষয়টির উত্তরণ ঘটাতে হবে। ভূমিকায় বর্ণিত সমস্যাটির প্রগতিশীল সমাধানের জন্য এখানে বিস্তারিত লেখা হয়। তবে পুরো Assignment-এর মূল অংশ এখানে উপস্থাপিত হবে। তবে এই অংশটিকে সচল রাখার জন্য অন্যকোন অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ের মধ্যে হারিয়ে গেলে চলবে না।

উপসংহারঃ এখানে পর্যবেক্ষণ, গবেষণা নির্বাচিত বিষয়টির রেজাল্ট উপস্থাপন করবে। এতে সমস্যার সমাধান এবং সমস্যার সমাধানের পথনির্দেশ থাকতে পারে আবার সাথে সাথে সুপারিশও থাকতে পারে।

আরও পড়ুন: ৮ম শ্রেণির এসাইনমেন্ট উত্তর ইসলাম ২০২১

Check Also

অষ্টম শ্রেণির বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ | ২১তম সপ্তাহ

অষ্টম শ্রেণির বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ | ২১তম সপ্তাহ

অষ্টম শ্রেণির বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ | ২১তম সপ্তাহ :  প্রিয় শিক্ষার্থী আপনি যদি অষ্টম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *